মোস্তাফিজের জীবনের সেরা মুহূর্ত ওই শেষ ওভারটিই

আবুধাবিতে প্রচণ্ড গরম। এর মধ্যে আবার পায়ে ক্র্যাম্প করছিল। পাঁচ ওভার পর মোস্তাফিজুর রহমান অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজাকে বলেছিলেন, তিনি আর বল করতে পারবেন না। অধিনায়ক যেন আকাশ থেকে পড়লেন! বলে কি ছেলেটা! তাঁকে ঘিরে সব পরিকল্পনা সাজানো আর মোস্তাফিজ কি না বলছেন আর পারবেন না।

আসলে মোস্তাফিজের কী দোষ, গরম তাঁকে কাহিল করে দিয়েছে। পানিশুন্যতায় ভুগেছেন। একই অবস্থা মাশরাফিরও। তিনি নিজে কারও কাছে বিষয়টি বলেননি।
চেষ্টা করে গেছেন যেভাবেই হোক মোস্তাফিজকে দিয়ে বল করাতে। ওই পাঁচ ওভারের পর তাঁকে বিশ্রামে পাঠিয়েছেন। মাঠে ফিরলে মোস্তাফিজকে অভয় দিয়েছেন। আবার শেষ ওভারে তাঁর ওপরই ভরসা রেখেছেন অধিনায়ক।

শেষ ওভারে জিততে আফগানিস্তানের দরকার ৮ রান। ৭ রান হলে ম্যাচ টাই হবে। এ রান তোলা কঠিন কিছু ছিল না। তারওপর উইকেটে সেট হয়ে গেছেন সামিউল্লাহ শেনওয়ারি। তার সঙ্গে আছেন আগের ম্যাচে মাশরাফিদের ঠেঙিয়ে ফিফটি তুলে নেওয়া রশিদ খান। কিন্তু মোস্তাফিজ যেন যাদু দেখালেন। সেই ওভারে দিলেন মাত্র ৪ রান। বাংলাদেশ জিতে গেল ৩ রানে।

বাংলাদেশকে এমন জয় পাইয়ে দিয়ে আনন্দে বাঁধনহারা মোস্তাফিজ। নিজের অনুভূতি তিনি ব্যক্ত করেছেন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে। শেষ ওভারটিকে ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা মুহূর্ত উল্লেখ করে টুইটারে মোস্তাফিজ লিখেছেন,‘ গতকাল ওটা ছিল আমার ক্রিকেট ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা মুহূর্ত। মুহূর্তটি বর্ণনা করার মতো ভাষা আমার জানা নেই। আমি সত্যিই উচ্ছ্বসিত আপনাদের সবার ভালোবাসা পেয়ে।’

ম্যাচ শেষে মোস্তাফিজকে নিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেছেন, ‘ম্যাচের শেষ দিকে মোস্তাফিজ ছিল রীতিমতো জাদুকর।’  মাহমুদউল্লাহ তো পারলে ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কারটি মোস্তাফিজকে দিয়ে দেন। তাঁর ভাষায়,‘এ যুগে ৬ বলে ৮ রান কোনও ব্যাপারই না।’ তিনি একথা দিয়েই বোঝাতে চেয়েছেন মোস্তাফিজ কী কাজটাই না করে দিয়েছে।






Related News

  • বাংলাদেশ ম্যাচ নিয়ে ভয়ে কাঁপছে পাকিস্তান
  • জয়টা কিন্তু টাইগারদের : মালিঙ্গার ঝড়
  • ‘ইতিবাচক’ দেখছেন মাহমুদউল্লাহ
  • ছুটছেন রাতেই তামিম
  • ভারত বাড়তি সুবিধা পাচ্ছে এশিয়া কাপের আয়োজক হওয়ায়
  • মালদ্বীপ কোনো ম্যাচ না জিতেই সেমিতে, দুই ম্যাচ জিতেও বাদ বাংলাদেশ
  • সাকিব দলের আগেই দুবাই চলে যাবেন