মওদুদ : আন্দোলনের মাধ্যমেই কারামুক্ত করবো খালেদা জিয়াকে

বিএনপির নেতাকর্মীদের আগামী দিনের আন্দোলনের জন্য প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তিনি বলেন, ‘শুধু হাততালি দিলে চলবে না, কর্মসূচি দিলে মাঠে নামতে হবে।’

আজ বুধবার দুপুরে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আয়োজিত প্রতীকী অনশনে তিনি এই আহ্বান জানান।

খালেদা জিয়ার কারামুক্তি ও তার সুচিকিৎসার দাবিতে অনশন করছিলেন বিএনপির নেতাকর্মীরা। অনশনের শেষ দিকে বক্তব্য দিতে আসেন মওদুদ আহমদ। তিনি বক্তব্য দেওয়া শুরু করতেই অনশনে অংশ নেওয়া নেতাকর্মীরা হাততালি দিয়ে স্লোগান দিতে থাকেন। এ সময় স্লোগান ও হাততালি থামানোর আহ্বান জানিয়ে মওদুদ বলেন, ‘সময় আসছে, বেশি দেরি নেই। এমন কর্মসূচি দেওয়া হবে, যে কর্মসূচিতে এই সরকারের নৌকা ভেসে যাবে।’

দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই নেতা বলেন, ‘সময় মাত্র মাসখানেক। আন্দোলনের জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে। এবার রাজপথে নেমে অভীষ্ঠ লক্ষ্যে পৌঁছানোর পর্যন্ত থাকতে হবে। সরকারকে বিদায় করতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়া নির্জন কারাগারে আছেন। তাকে একটি পরিত্যক্ত কক্ষে আবদ্ধ করে রাখা হয়েছে।’

সরকার খালেদা জিয়ার মুক্তি চায় না বলে মন্তব্য করে ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, ‘আইনি প্রক্রিয়ায় খালেদা জিয়ার মুক্তি হবে বলে অন্তত আমার মনে হয় না। তাই খালেদা জিয়ার মুক্তির একমাত্র পথ হলো রাজপথের আন্দোলন। ইনশাল্লাহ, আমরা খালেদা জিয়াকে আন্দোলনের মাধ্যমেই কারামুক্ত করবো।’

স্থায়ী কমিটির অন্যতম সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সভাপতিত্বে প্রতীকী অনশনে দলের সিনিয়র নেতারা অংশ নেন। দুপুর ১২টার দিকে অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ নেতাদের পানি পান করিয়ে অনশন ভঙ্গ করান।






Related News

  • প্রধানমন্ত্রীকে ফখরুল : বিশ্বনেতারা চাইলে কী ক্ষমতায় থাকা যায়
  • চিকিৎসার প্রস্তুতি শুরু খালেদা জিয়ার
  • মওদুদ আহমদ : এক মাসের মধ্যেই রাজনীতিতে পরিবর্তন আসবে
  • কাদের বললেন,এটা কি মামা বাড়ির আবদার
  • প্রতীকী অনশন বিএনপির খালেদার মুক্তির দাবিতে
  • আজ খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে রিটের শুনানি
  • আ. লীগের শোকজ : ২ কেন্দ্রীয় নেতা, ৩ এমপিসহ ১৪ নেতাকে