সংবিধান লঙ্ঘন করেছে সরকার কারগারে আদালত বসিয়ে : বিএনপি

বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার শুনানি অনুষ্ঠানে কারগারে আদালত স্থাপন করে সরকার সংবিধান লঙ্ঘন করেছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার মামলা এতদিন একটি বিশেষ আদালত তৈরি করে ঢাকা আলিয়া মাদরাসা প্রাঙ্গণে চলছিল। এখন সরকার প্রজ্ঞাপন জারি করে কেন্দ্রীয় কারাগারের ভেতরে নিচ্ছে। এটা একটি ক্যামেরা ট্রায়াল। এ ধরনের মামলায় ক্যামেরা ট্রায়ালের সুযোগ নেই। এ পদক্ষেপ সম্পূর্ণ সংবিধান বিরোধী। বিএনপি মহাসচিব বলেন, একদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করতেই এটা করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, অত্যন্ত হীন উদ্দেশে এসব কার্যক্রম করছে সরকার। এ ধরনের কার্যক্রম আসন্ন নির্বাচনকে প্রভাবিত করবে। আমরা এটাকে খুবই গুরুত্বের সঙ্গে নিচ্ছি। এটাকে ছোট করে দেখার সুযোগ নেই। এটার প্রেক্ষিতে পরবর্তী কর্মসূচি জানিয়ে দেব।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সবচেয়ে বড় কথা খালেদা জিয়া একজন প্রবীণ রাজনীতিক। তার অধিকার হরণ করা হচ্ছে। সংবিধান লঙ্ঘন করা হচ্ছে।






Related News

  • প্রধানমন্ত্রীকে ফখরুল : বিশ্বনেতারা চাইলে কী ক্ষমতায় থাকা যায়
  • চিকিৎসার প্রস্তুতি শুরু খালেদা জিয়ার
  • মওদুদ আহমদ : এক মাসের মধ্যেই রাজনীতিতে পরিবর্তন আসবে
  • কাদের বললেন,এটা কি মামা বাড়ির আবদার
  • প্রতীকী অনশন বিএনপির খালেদার মুক্তির দাবিতে
  • মওদুদ : আন্দোলনের মাধ্যমেই কারামুক্ত করবো খালেদা জিয়াকে
  • আজ খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে রিটের শুনানি
  • আ. লীগের শোকজ : ২ কেন্দ্রীয় নেতা, ৩ এমপিসহ ১৪ নেতাকে