খন্দকার মোশাররফ : এভাবে নির্বাচন হবে না

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া এবং বিএনপি ছাড়া বাংলাদেশে নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হবে না বলে জানালেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

তিনি বলেন, সারা দুনিয়া চায় অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন। এ নির্বাচন এভাবে হবে না। এজন্য নেতাকর্মীদের আন্দোলনে নামতে হবে।

শনিবার বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর নয়াপল্টনে আয়োজিত জনসভায় তিনি এ আহ্বান জানান। জনসভার খালেদা জিয়ার পরিবর্তে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খন্দকার মোশাররফ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ভারাক্রান্ত মন নিয়ে আজ দলের ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করছি, কারণ দলের চেয়ারপারসন কারাগারে।

তিনি বলেন, একসময় আওয়ামী লীগ বাকশাল প্রতিষ্ঠা করে দেশে রাজনৈতিক শূন্যতার সৃষ্টি করেছিলো। জিয়াউর রহমান সেই শূন্যতাপূরণ করেন। আওয়ামী লীগ যেখানে ব্যর্থ হয়েছে, জিয়াউর রহমান সেখানে সফল হয়েছেন, সেজন্য বিএনপিকে তারা এত ভয় পায়। যার প্রমাণ আজকের জনসভাও।

এ সভা আজ জনসমুদ্রে পরিণত হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ষ্পষ্ট ভাবে বলতে চাই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগেই নেত্রীকে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে।

সরকারি আমলাদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আমলাদের বলছি আপনারা তফসিল ঘোষণার আগেই নিরপেক্ষ হয়ে যান।

দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলন ও শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেওয়ার কথা বলে ওয়াদা ভঙ্গ করার মাসুল আওয়ামী লীগ সরকারকে দিতে হবে।এজন্য তরুণ প্রজন্ম আর কোনোদিন আওয়ামী লীগকে ভোট দেবে না।

তিনি আরো বলেন, আইনজীবীরা খালেদা জিয়ার জামিনের জন্য যতবার চেষ্টা করেছেন, ততবার সরকার আটকে দিয়েছে। আইনি প্রক্রিয়ায় নেত্রীর মুক্তি সম্ভব নয়, তার মুক্তির একমাত্র পথ রাজপথ, তাই রাজপথে আন্দোলনের প্রস্তুতি নিতে হবে।






Related News

  • প্রধানমন্ত্রীকে ফখরুল : বিশ্বনেতারা চাইলে কী ক্ষমতায় থাকা যায়
  • চিকিৎসার প্রস্তুতি শুরু খালেদা জিয়ার
  • মওদুদ আহমদ : এক মাসের মধ্যেই রাজনীতিতে পরিবর্তন আসবে
  • কাদের বললেন,এটা কি মামা বাড়ির আবদার
  • প্রতীকী অনশন বিএনপির খালেদার মুক্তির দাবিতে
  • মওদুদ : আন্দোলনের মাধ্যমেই কারামুক্ত করবো খালেদা জিয়াকে
  • আজ খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে রিটের শুনানি
  • আ. লীগের শোকজ : ২ কেন্দ্রীয় নেতা, ৩ এমপিসহ ১৪ নেতাকে