নিষিদ্ধ হচ্ছেন ছয় মাস সাব্বির

ক্রিকেটারদের একের পর এক নেতিবাচক খবর আসায় বিব্রত ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবি। শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে তাদের অনেকে শাস্তিও পেয়েছেন নানা মেয়াদে। কেউ সতর্কতায় পার পেয়েছেন। তবে নাসির হোসেন, সাব্বির রহমানদের নামে সম্প্রতি কিছু গুরুতর অভিযোগ উঠে। সর্বশেষ এই তালিকায় যুক্ত হন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। যার নামে থানায় নারী নির্যাতনের মামলা দায়ের করেন তার স্ত্রী।

ক্রিকেটাররা যখন অনেকের আইডল, ঠিক তখন তাদের জীবন যাপনে এমন চিত্র ভয়ের কারণ হয়েই দাঁড়িয়েছিল। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড তাই শক্ত হওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সময় থাকতেই। শনিবার শৃঙ্খলা কমিটির সামনে তলব করা হয় অভিযুক্ত তিন ক্রিকেটার নাসির হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও সাব্বির রহমানকে।

শুনানি শেষে এদের মধ্যে সাব্বির রহমানকে ছয় মাসের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষিদ্ধ করার সুপারিশ করেছে শৃঙ্খলা কমিটি। মৌখিক সতর্ক করা হয়েছে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে। নাসির উপস্থিত না হতে পারায় তার শুনানি হয়নি।

সম্প্রতি সাব্বিরের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দর্শককে গালিগালাজ ও মারধরের হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠে। সাব্বির অবশ্য বলেছিলেন, তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি হ্যাক হয়েছিল। তার ঠিক আগে ঘরোয়া ক্রিকেটে এক কিশোর দর্শককে পেটানোর অভিযোগে ছয় মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে। করা হয়েছিল আর্থিক জরিমানাও। বাদ পড়েন বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকেও।

এর মাঝেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দর্শককে হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠে সাব্বিরের বিরুদ্ধে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে ড্রেসিংরুমে মেহেদী হাসান মিরাজকে শারীরিকভাবে আঘাতও করেছিলেন বলে খবর প্রকাশ হয়।

এতো এতো অভিযোগের মধ্যে সাব্বিরকে তিন বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হোক এমন প্রস্তাবও নাকি দিয়েছিলেন বোর্ড পরিচালকদের কেউ কেউ। গুঞ্জন আছে বিশ্বকাপের কথা ভেবে নাকি এতো বড় সিদ্ধান্তে যায়নি শৃঙ্খলা কমিটি।






Related News

  • মোস্তাফিজের জীবনের সেরা মুহূর্ত ওই শেষ ওভারটিই
  • বাংলাদেশ ম্যাচ নিয়ে ভয়ে কাঁপছে পাকিস্তান
  • জয়টা কিন্তু টাইগারদের : মালিঙ্গার ঝড়
  • ‘ইতিবাচক’ দেখছেন মাহমুদউল্লাহ
  • ছুটছেন রাতেই তামিম
  • ভারত বাড়তি সুবিধা পাচ্ছে এশিয়া কাপের আয়োজক হওয়ায়
  • মালদ্বীপ কোনো ম্যাচ না জিতেই সেমিতে, দুই ম্যাচ জিতেও বাদ বাংলাদেশ
  • সাকিব দলের আগেই দুবাই চলে যাবেন