বিপদ ডেকে আনলেন ঐশ্বরিয়া

আরাধ্যার জন্মের প্রায় ৫ বছর পর বলিউডে কামব্যাক করেন সাবেক বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই। ‘জাজবা’ দিয়ে রুপোলি পর্দায় কামব্যাক করলেও, ওই সিনেমা কিন্তু সেভাবে ব্যবসা করতে পারেনি। এরপর ‘সর্বজিত’, ‘ফান্নে খান’-ও বক্স অফিসে ভাল ব্যবসা করতে পারেনি।

‘ফান্নে খান’ মুক্তির পর বি টাউনের একাংশ মন্তব্য করতে শুরু করে, ঐশ্বরিয়া রাই অভিনয়ের ধার আগের তুলনায় অনেকটা কমে গেছে। বেশ কয়েকজন পরিচালকও ঐশ্বরিয়ার অভিনয় দক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। কিন্তু, রাই-এর সিনেমা কেন পরপর ফ্লপ করছেন, এর পিছনে আসল কারণ কী?

ফিল্মবিট-এর খবর অনুযায়ী, অভিষেক বচ্চনের পাশে থাকার জন্য, স্বামীর ক্যারিয়ার গ্রাফকে উপরে তোলার জন্য ঐশ্বরিয়া নাকি নানা ধরনের ঝুঁকি নিতে শুরু করেছেন। নিচ্ছেন ভুল সিদ্ধান্তও। যে সঞ্জয় লীলা বানসালির ‘হাম দিল দে চুকে সনম’ দিয়ে বলিউডে পাকাপোক্ত জায়গা করে নেন ঐশ্বরিয়া, অভিষেকের জন্য নাকি সেই বানসালির সিনেমাতেও না করে দিয়েছেন রাই।

শোনা যাচ্ছে, ‘গুলাব জামুন’-এ অভিনয় করতে হলে, ঐশ্বরিয়াকে বানসালির প্রজেক্ট না করতে হত। ‘গুলাব জামুন’-এর সঙ্গে বানসালির সিনেমার শুটিং ডেট মিলে যাচ্ছিল। আর সেই কারণেই স্বামীর সঙ্গে অভিনয় করতে সঞ্জয় লীলা বানসালিকে ‘না’ করে দেন ঐশ্বরিয়া।

প্রসঙ্গত, ‘রাবণ’-এর দীর্ঘ ৮ বছর পর অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে আবার স্ক্রিন শেয়ার করছেন অ্যাশ। আর সেই কারণেই সঞ্জয় লীলা বানসালির মত পরিচালককে সোজা না করে দেন বলিউডের এ তারকা অভিনেত্রী। যদিও, বিষয়টি নিয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খুলতে দেখা যায় নি ঐশ্বরিয়াকে।

এদিকে ঐশ্বরিয়া যখন ‘গুলাম জামুন’-এর প্রস্তুতি নিচ্ছেন, সেই সময় ‘মনমর্জিয়া’-র শুটিং করছেন অভিষেক বচ্চন। দীর্ঘ বেশ কয়েক বছর পর আবার অভিষেক বচ্চনকে সিলভার স্ক্রিনে দেখা যাবে। এই সিনেমায় অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে রয়েছেন ভিকি কৌশল এবং তপসি পান্নু।

অভিষেকের কামব্যাক নিয়ে সম্প্রতি অমিতাভ বচ্চনকে প্রশ্ন করা হলে, তিনিও বেশ ঘুরিয়েই উত্তর দেন। বিগ বি বলেন, অভিষেকের ‘মনমর্জিয়া’ নিয়ে তিনি আশাবাদী। কিন্তু, এই সিনেমা অভিষেকের প্রথম ইনিংস না দ্বিতীয় ইনিংস, সে বিষয়ে কিছু জানেন না তিনি।