ঈদের ছুটি কাটিয়ে জীবিকার প্রয়োজনে রাজধানীতে ফিরছে মানুষ

ঈদের ছুটি শেষ হওয়ায় জীবিকার প্রয়োজনে রাজধানীতে ফিরছে মানুষ। বৃহস্পতিবার ঈদের ছুটি শেষ হলেও শুক্রবার ও শনিবার সাপ্তাহিক ছুটির কারণে অতিরিক্ত দু’দিন সময় পেয়েছেন সরকারি চাকরিজীবীরা। রোবরার থেকে কর্মস্থলে যোগ দেবেন তারা। ঈদের আমেজ শেষে পাঁচদিন পর আবারও পুরোনো রূপে ফিরতে শুরু করেছে রাজধানী ঢাকা।

গতকাল থেকেই বাস, রেল ও লঞ্চ টার্মিনালগুলোতে রাজধানীমুখী মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। ঈদের তৃতীয় দিন শুক্রবার সকাল থেকে রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে ও সদরঘাটে দেখা গেছে হাজার হাজার যাত্রী ঢাকা ফিরছে। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ঢাকামুখী প্রতিটি ট্রেনই ফিরেছে যাত্রীভর্তি হয়ে।

রাজধানীতে ফেরত আসা যাত্রীরা জানান, স্বজনদের মাঝে থাকার আনন্দ পেছনে ফেলে ঢাকায় ফেরাটা কিছুটা বিষাদের। তা সত্ত্বেও জীবন সংগ্রামের জন্য এ শহরে আসতে হয়। ফিরতে হয় আয়-রোজগারে। তাই তো শত ভোগান্তির মধ্যেও ক্ষণিকের আনন্দ মিটিয়ে কর্মব্যস্ত নগরীতে ফিরে আসতে হয়।

অনেক যাত্রীর অভিযোগ, ঢাকা ফেরার সময় টিকিট পেতে যেমন হয়রানির শিকার হতে হয়েছে, তেমনি অনেককে ট্রেনের আসন পেতেও বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছে।

কমলাপুর রেলস্টেশনের ম্যানেজার সিতাংশু চক্রবর্তী বলেন, বাড়ি ফেরা মানুষ স্বস্তিতে ঢাকায় আসছেন। যেসব ট্রেন বিলম্বে এসেছে, সেটিও যাত্রীদের কারণে। কারণ যাত্রীদের ওঠা-নামায় বেশ সময় লেগেছে। সবচেয়ে বড় কথা হলো, এবার নিরাপদে মানুষ ঢাকায় পৌঁছাতে পেরেছেন।

টিকিট স্বল্পতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ঈদে যে সংখ্যায় মানুষ বাড়ি যান ঠিক সেই পরিমাণ মানুষ আবার ঢাকায় ফেরেন। এ কারণে টিকিট ও আসন স্বল্পতা তো হবেই।

বিআইডব্লিউটি সূত্রে জানা গেছে, গতকাল থেকেই চাপ বেড়েছে যাত্রীদের। আজ আরও বাড়তে পারে। বেশিরভাগ লঞ্চ সদরঘাটে যাত্রী নামিয়ে দিয়ে প্রায় খালি অবস্থাতেই চলে যাচ্ছে যাত্রী আনতে।

এদিকে, সড়কপথে যাত্রী যানবাহনের অতিরিক্ত চাপ আর ভিড় না থাকায় যানজটহীন রাজধানীতে স্বস্তিতেই ফিরছেন মানুষ। তেমন কোনো ভোগান্তি না হলেও বিভিন্ন জেলায় সড়কের বেহাল দশার কথা জানিয়েছেন অনেক যাত্রী।

শনিবার গাবতলী বাস টার্মিনালে রাজশাহী, রংপুর, কুষ্টিয়া, নাটোর, সিরাজগঞ্জ থেকে ঈদ ফেরত যাত্রীদের আসতে দেখা গেছে। একই অবস্থা দেখা গেছে রাজধানীর সায়েদাবাদ, মহাখালী, কমলাপুরসহ বিভিন্ন বাস টার্মিনালগুলোতে। এদিন যাত্রীদের তেমন ভিড় না থাকলেও সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আজ থেকে এ চিত্র বদলে যাবে। ভিড় বাড়বে সামনের দিনগুলোতে।

এদিকে ট্রেন স্টেশন, সদরঘাট ও বাস স্ট্যান্ডগুলোতে অটোরিকশা, রিকশার চালকরা যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।






Related News

  • কে খায় ইবির হলের টাকা…
  • ‘প্রধানমন্ত্রীর’ প্রস্তাব রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে ‘সেফ জোন’সহ ৩
  • রাষ্ট্রপতি : যাদের কথা-কাজে মিল আছে, তাদের ভোট দিন
  • প্রধানমন্ত্রী : ঢাকার চারপাশে এলিভেটেড রিং রোড হবে
  • প্রধানমন্ত্রী : স্কুল থেকেই শেখানো উচিত ট্রাফিক নিয়ম
  • আরো গভীর হলো বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক
  • মুক্তিযোদ্ধার ভাতা ভাই-বোনও পাবেন
  • যেকোনো দিন তফসিল ৩০ অক্টোবরের পর